রাজশাহীর ভাষা সৈনিক আবুল হোসেন আর নেই

শেয়ার করুন

বিস্তারিত দেখুন নিচের ভিডিও লিংকে সেলিম উদ্দীনের প্রতিবেদনে…

রাজশাহীর ভাষা সৈনিক আবুল হোসেন আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)। আজ বুধবার সোয়া ৪টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করে। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর।

তার মৃত্যুতে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি এক শোক বার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন ও তাঁর শোক সন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন

রামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, ৪টার দিকে বেসরকারি বারিন্দ্র মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ভাষা সৈনিক আবুল হোসেনকে রামেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেয়া হয়। সেখান থেকে তাকে ৩২ নং ওয়ার্ডে পাঠানো হলে সেখানে পরীক্ষা নিরিক্ষার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা। তবে তাকে হাসপাতালে নেয়ার আগেই তার মৃত্যু হয় বলে জানান তিনি।

মরহুমের বড় ছেলে আবুল হাসনাৎ জানান, বার্ধক্যজনিত কারণে অসুস্থ্য হয়ে পড়লে ভাসা সৈনিক আবুল হোসেনকে বেসরকারি বারিন্দ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

জানা যায়, ১৫ দিন থেকে তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ ছিলেন। বাসাতেই চিকিৎসাধীন ছিলেন। বুধবার সকালে শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত ৯ ফেব্রুয়ারি তাকে করোনার ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দেয়া হয়।

ভাষাসৈনিক আবুল হোসেন মৃত্যুর আগ পর্যন্ত একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি ও সম্মেলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি ছিলেন। মরহুম আবুল হোসেনের দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে এবং স্ত্রী আগেই পরলোকগমন করেন।

আজ বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে নগরের টিকাপাড়া মহানগর ঈদগাহ মাঠে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। এর পর টিকাপাড়া কবর স্থানে তার দাফন সম্পন্ন হবে।